ক্রিপ্টোকারেন্সি  বা ক্রিপ্টোমুদ্রা হলো এক ধরণের ভার্চুয়াল মুদ্রা বা ডিজিটাল কারেন্সি। এগুলো একধরণের মাইনিং পদ্ধতির মাধ্যমে তৈরী হয়।  এরকম জনপ্রিয় কিছু ক্রিপ্টো কারেন্সি হলো বিট কয়েন, এথারূন কয়েন, ডজ কয়েন, শিবা ইনু ইত্যাদি।

ক্রিপ্টোকারেন্সি বা ক্রিপ্টোমুদ্রা

তো আমাদের দেশেও এই ক্রিপ্টো কারেন্সি কেনা বেচা করা যায় খুব সহজ উপায়ে কিছু এপপ্স এর সাহায্যে। এই ক্রিপ্টো কারেন্সি কেনাবেচা করে আপনিও কিছু আয় করতে পারবেন। তো জানা যাক কোন কোন এপপ্সের সাহায্যে এই কাজ করা যাবে।

WAZRIX 

WAZRIX

আপনি যদি বিটকয়েন বা ক্রিপ্টো কারেন্সি নিয়ে রিসার্চ করেন তাহলে এই এপপ্সটি নাম নিশ্চয়ই শুনেছেন। এই এপপ্সটি এন্ড্রোয়েড, আইওএস, উইন্ডোজ  এবং ম্যাক প্লাটফর্ম এও উপলব্ধ। WazriX এর মধ্যে আপনি ভারতীয় টাকার মাধ্যমে বিট কয়েন সহ অনেকগুলো ক্রিপ্টো কারেন্সি কিনতে পারবেন।
এর জন্য আপনাকে WazriX এ একটি একাউন্ট বানাতে হবে তারপর নিজের ব্যাঙ্ক একাউন্ট সংযুক্ত করবেন এবং এর KYC ভেরিফিকেশনটি সম্পূর্ণ  করবেন একাউন্টটি সম্পূর্ণ রূপে এক্টিভ এবং সুরক্ষিত করার জন্য। আপনি সর্বনিম্ম ১০০ টাকা ফান্ড লোড করে যে কোনো ক্রিপ্টো কারেন্সি কিনে লগ্নি করতে পারবেন। ফান্ড লোড করার জন্য আপনি মোবিকুইক, ইউপিআই, নেফট , ব্যাঙ্ক ট্রান্সফার এর মাধ্যমে ফান্ড অ্যাড করতে পারবেন। বিক্রিত ফান্ড আপনার ব্যাঙ্ক একাউন্ট এ সরাসরি ট্রান্সফার করা যায়।

COINDCX

CoinDCX
ভারতের ক্রিপ্টো কারেন্সি এর বাজারের অন্যতম জনপ্রিয় এপপ্স হলো এই CoinDCX। এই CoinDCX এর মাধমে বিট কয়েন ছাড়াও দুশোটি এরও বেশি ক্রিপ্টো মুদ্রা কেনা বেচা করা যায় ভারতীয় টাকার মাধ্যমে। এখানে ইমেইল, ফোন নং এর সাহায্যে একটি একাউন্ট তৈরী করুন এবং ব্যাঙ্ক একাউন্ট সংযুক্ত করার পর KYC ভেরিফিকেশন কমপ্লিট করুন এবং ফান্ড অ্যাড করে ক্রিপ্টো কারেন্সি কেনাবেচা শুরু করুন সর্বনিম্ম ১০০ টাকা দিয়ে। ফান্ড লোড করার জন্য আপনি মোবিকুইক, ইউপিআই ইত্যাদি মাধ্যম ব্যবহার করুন।
এই লিংকের মাধ্যমে CoinDCX একাউন্ট তৈরী করুন আর KYC ভেরিফিকেশন সম্পূর্ণ করার পর ১০০ টাকা মূল্যের ইথার কয়েন পেয়ে যান একদম বিনামূল্যে।

Unocoin

Unocoin

Unocoin হলো ভারতের অন্যতম পুরানো ক্রিপ্টো কারেন্সি লেনদেন করার এপপ্স। এই এপপ্সের মাধ্যমে বিভিন্ন ক্রিপ্টো কারেন্সি কেনাবেচা লেনদেন করা সম্ভৰ।

CoinSwitch Kuber

CoinSwitch Kuber

এটি ভারতের অন্যতম জনপ্রিয় ক্রিপ্টো লেনদেনের এপপ্স।  সর্বনিম্ম ১০০ টাকা দিয়ে ট্রেডিং শুরু করতে পারেন এই এপপ্সের মাধ্যমে।
এছাড়াও আরো অনেক ক্রিপ্টো এপপ্স আছে যা দিয়ে ভারতীয় মুদ্রায় ক্রিপ্টো কারেন্সি কেনাবেচা করতে পারবেন যেমন – Zebpay,
সাম্প্রতিক কালে চীন এই ক্রিপ্টো কারেন্সি তাদের দেশে নিষিদ্ধ করেছেন। আবার একটি ছোট দেশ এল সালভাদরে ক্রিপ্টো কারেন্সি কে তাদের দেশের মুদ্রা হিসাবে স্বীকৃতি দিয়েছেন।
ভারতবর্ষেও এই ক্রিপ্টো কারেন্সি এর ভবিষ্যৎ এ কি ভাবে চলবে সরকার এই বিষয়ে চিন্তা ভাবনা শুরু করে দিয়েছে। আসলে এই মুদ্রা হয়তো কিছু দিন বাদে পৃথিবীর মুদ্রা হিসাবে স্বীকৃত হবে।
ধন্যবাদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You may use these HTML tags and attributes:

<a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>